শেয়ার বাজার ও শেয়ার : What is a share & share market

  • আপনি যদি শেয়ার বাজার নিয়ে আগ্রহী হন
  • বা শেয়ার কিনতে বা বেচতে মনস্থ করেছেন
  • বা চাইছেন শেয়ার ট্রেডিং করে কিছু রোজগার করবেন,
  • কিন্তু আপনার ধারণা নেই কিভাবে শেয়ার কেনাবেচা হয় বা শেয়ার জিনিসটি কি ?
  • তাহলে এই tutorial টি আপনার জন্যে একবারে উপযুক্ত।
  • What is stock share, share market & share trading (English) ?
  • তাই আর দেরি না করে পড়তে আরম্ভ করুন।

শেয়ার বলতে কি বোঝায় ?

What is a share – definition of Stock in Bengali Bangla

একটি Stock ( স্টক ) বা Share ( শেয়ার ) বা কোম্পানির Equity হলো একটি financial instrument বা আর্থিক যন্ত্র যা কোনও “সংস্থা বা company” র মালিকানা এবং তার সম্পত্তির (asset) এবং Income ( বা লাভ ) এর প্রতিনিধিত্ব করে ও তার আনুপাতিক দাবি উপস্থাপন করে।

উদাহরণস্বরূপ, কোনো কোম্পানির যদি ১,০০,০০০ শেয়ার থাকে ও তার মধ্যে যদি আপনার কাছে ১,০০০ টি শেয়ার থাকে তার মানে আপনি কোম্পানির ১% মালিক । কিন্তু এই মালিকানা মানে আপনি কোম্পানির ঘর বাড়ি অফিস দাবি করতে পারবেন না।

  • আপনি যদি ভাবেন যে আপনার কাছে কোম্পানির কিছু শেয়ার আছে বলে কোম্পানির লোকজন আপনাকে বিশেষ খাতির করবে , ভুলেও তেমন আশা করবেন না।

Outstanding শেয়ার বলতে কোনো কোম্পানির কর্মচারী, অফিসারদের কাছে থাকা Company র শেয়ার, ইনস্টিটিউশনাল Investor দের কাছে থাকা শেয়ার ও সাধারণ সমস্ত শেয়ার হোল্ডার দের কাছে থাকা ওই কোম্পানির বা সংস্থার Share গুলির সমষ্টিকে বোঝায়।

শেয়ার বাজার কি ?– What is Stock Market

স্টক মার্কেট হলো এমন একটি জায়গা যেখানে একজন ব্যক্তি বা কোনো বিনিয়োগকারী সংস্থা (Institutional Investors) শেয়ার কিনতে এবং বিক্রি করতে আসে। আজকাল Stock মার্কেট হলো একটি Electronic Marketplace।

শেয়ার বা Stock মূলত স্টক এক্সচেঞ্জগুলিতে কেনা বেচা করা হয় (NSE বা ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জ (National Stock Exchange)হলো ভারতের স্টক এক্সচেঞ্জ), তবে ব্যক্তিগত ভাবে ক্রয় বিক্রয়ও কিন্তু করা হতে পারে। এই কেনা বেচাগুলি সরকারি নিয়ম মেনে করতে হবে, এই নিয়ম গুলি করা হয়েছে যাতে সাধারণ বিনিয়োগকারী যারা শেয়ার কিনতে বা বিক্রি করতে আসছেন তারা যাতে প্রতারণাকারী দের হাতে না পড়েন। বিনিয়োগকারীদের রক্ষা করার উদ্দেশ্যে সরকারি নিয়মগুলি তৈরী।

তবে যতরকম বিনিয়োগ বা লগ্নি করার উপায় আছে তার মধ্যে শেয়ারে লগ্নি সবথেকে রিটার্ন বেশি দেয় , এবং ঝুঁকিও সবথেকে এতে বেশি।

শেয়ারে লগ্নি এবং শেয়ার ট্রেডিং এর তফাৎ কোথায় ?

Difference between share investment & share trading

শেয়ারে লগ্নি হলো কিছু টাকা আপনি সে শেয়ার বাজারে ইনভেস্ট করলেন কিছু শেয়ার কেনার মাধ্যমে , সেটা যে কোনো কোম্পানির শেয়ার হতে পারে , যেমন টাটা স্টিল , স্টেট ব্যাঙ্ক , বাজাজ অটো ইত্যাদি।

আর শেয়ার ট্রেডিং হলো কিছু শেয়ার অল্প দিনের মধ্যে কেনাবেচা করা। কোনো কোম্পানির শেয়ার কিনে ২ দিন , ৭ দিন , ১৫ দিন , ১ মাস বা কয়েক মাস পরে বিক্রি করে দিলেন। অথবা দিনের দিন কিছু শেয়ার কিনে বেচে দিলেন বা কিছু শেয়ার আগে বেচে দিয়ে পরে কিনে নিলেন দিনের শেষে।

শেয়ার বাজারে শেয়ার না কিনে কি আগে বিক্রি করা যায় ?

হ্যাঁ যায় , না কিনে দিনের শুরু তে কিছু শেয়ার বেচে দিয়ে দিনের শেষে কিনে নেওয়া যায়। এই ট্রেডিং কে বলে শর্ট সেলিং। শেয়ার বাজারে শেয়ার না কিনেই আগে বেচে দিয়ে দিনের শেষে কিনে নেওয়া যায়, এক্ষেত্রে বেশি দামে বেচে কম দামে কিনলে আপনার লাভ হবে।

শেয়ার ও কোম্পানির সম্পত্তির তফাৎ

একটি কোম্পানির সম্পত্তি বা প্রপার্টি কিন্তু আইনীভাবে শেয়ারহোল্ডারদের সম্পত্তি নয়।

  • একটি কোম্পানি যদি দেউলিয়া হয়ে যায়, তাহলে আদালত সেই কোম্পানির সমস্ত সম্পত্তি বিক্রি করে দিতে পারে
  • তবে কোর্ট আপনাকে আপনার শেয়ার বিক্রি করতে বাধ্য করতে পারে না।
  • তবে কোম্পানি যদি দেউলিয়া হয়ে গেলে শেয়ারের মূল্য অত্যন্ত পড়ে যায়।
  • অপরদিকে কোনো শেয়ারহোল্ডার দেউলিয়া হয়ে গেলেও সে তার ঋণ শোধ করতে কোম্পানির সম্পদ বিক্রি করতে পারবে না।

কেন কোনো কোম্পানি শেয়ার বাজারে ছাড়ে ?

কোনো Company শেয়ার ইস্যু (বিক্রি) করে তাদের ব্যবসা বিস্তার করার জন্য তহবিল বাড়াতে। ব্যবসা বাড়াতে টাকার দরকার , সেই টাকা কে দেবে ? না বাজার দেবে। তাই কোম্পানি সেই কোম্পানির শেয়ার বাজারে ছাড়ে টাকা তোলার জন্যে।

শেয়ার কিনে আপনি কি কি করতে পারেন?

  • আপনি শেয়ারহোল্ডারদের সভাগুলোতে যোগ দিতে পারবেন।
  • কোম্পানির মুনাফা হলে ও কোম্পানি তার লভ্যাংশ যদি বিতরণ করে তবে তার একটি আনুপাতিক ভাগ আপনি পাবেন।
  • আপনি আপনার শেয়ারগুলি অন্য কারো কাছে বিক্রি করতে পারবেন যখন খুশি।
  • আপনি যদি কোম্পানির অধিকাংশ শেয়ারের মালিক হন তখন আপনার কোম্পানির মিটিং এ আপনার ভোটের গুরুত্ব বৃদ্ধি পাবে, আপনি কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ বা Board of Directors নিয়োগ করে কোনও কোম্পানিকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।
  • যখন এক কোম্পানি অন্য আর একটি এক কোম্পানি কিনে নেয় তখন তারা অধিগ্রহণকারী সংস্থার বিল্ডিং, চেয়ার, টেবিল কেনে না, বরং সব শেয়ার কিনে নেয় ।
  • শেয়ার হোল্ডার হওয়া মানে – আপনি কোম্পানির লাভের একটি অংশের অধিকারী, কোম্পানি লাভ করলে তবেই একটি স্টকের মূল্য বৃদ্ধি পায়।

কিভাবে শেয়ারের দাম ঠিক হয় ?

শেয়ারের দাম সরবরাহ বা supply এবং demand / চাহিদা দ্বারা ঠিক হয়। কোনো শেয়ারের দাম বাড়ে যখন চাহিদা বাড়ে , সবাই সেই শেয়ার কিনতে থাকে ও তার দাম বাড়তে থাকে।

কোনো কোম্পানি নতুন করে আবার শেয়ার ইস্যু করতে পারে কি ?

যখন অতিরিক্ত টাকার দরকার হয় তখন বাজার থেকে টাকা তোলার জন্যে কোনো কোম্পানি নতুন শেয়ার ইস্যু করতে পারে।

কোনো শেয়ারের দাম কি সবসময় বাড়বে ?

কোনো শেয়ারের দাম যে সবসময় বাড়বে এরকম কোনো কোনও গ্যারান্টি নেই। কোনো শেয়ারের দাম অনেকসময় কৃত্রিমভাবেও প্রমোটররা বাড়িয়ে থাকে। আপনি ভাবলেন যে দাম এমনি এমনি বাড়ছে। কিন্তু আদৌ তা নয়, বরং দাম বাড়ানো হচ্ছে। অনেকসময় কোম্পানির সাথে যুক্ত ব্যক্তিরা কৃত্রিমভাবে দাম বাড়িয়ে থাকে। তবে ভালো শেয়ারের দাম কিন্তু সময়ের সাথে সাথে বাড়ে , দেখবেন ২ বছর আগে যে দাম ছিল আজ দাম তার থেকে বেশি।

কখন কোনো শেয়ারের দাম পড়তে থাকে ?

  • যখন ওই কোম্পানি টি লস করে,
  • বা কোনো দুর্নীতির সাথে কোনো ভাবে যুক্ত হয়,
  • বা দেউলিয়া হয়ে যায়, তখন সেই কোম্পানির শেয়ারের দাম ক্রমাগত পড়তে থাকে।

Published by Share Market Training Kolkata

Welcome to the share marker courses of Bikram Choudhurys conducted in Kolkata. Also live online share trading courses are available for all India students. These stock market courses has been designed for beginners to stock market. Because most beginners in share market trading start with big losses. So Mr Choudhury wants to educate them - how to minimize losses and maximize profit in share market

Join the Conversation

2 Comments

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *